July 31, 2021, 1:45 am

তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রীর শপথ নিলেন মমতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে টানা তৃতীয়বারের মতো শপথ নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার (৫ মে) স্থানীয় সময় সকাল পৌনে ১১টায় কলকাতার রাজভবনে শপথ নেন তিনি। রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় মমতাকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ পাঠ করান।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে বুধবার স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ১০টার দিকে কলকাতায় নিজের কালীঘাটের বাড়ি থেকে বের হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বরাবরের মতো এ সময় তিনি সাদা শাড়ি এবং হাওয়াই চপল পরে ছিলেন। পরে সাড়ে ১০টার দিকে তিনি রাজভবনে পৌঁছেন। এরপর ঘড়িতে ঠিক ১০ টা ৪৫ মিনিটে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শপথবাক্য পাঠ করান।

করোনা আবহে অল্প কয়েকজনকেই শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। উপস্থিত হয়েছিলেন তৃণমূলের কয়েকজন শীর্ষ নেতা। ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর, সাংসদ শতাব্দী রায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, দেবসহ আরও অনেকে। এসেছিলেন কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্যও। তবে আমন্ত্রণ জানানো হলেও ছিলেন না বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

শপথবাক্য পাঠের পরই উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ জয়ের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। রাজ্যপাল এবং তার পরিবারকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এছাড়া বাংলার মা-মাটি-মানুষকেও অসংখ্য ধন্যবাদ। তবে এখন আমাদের প্রথম কাজ করোনার মোকাবিলা করা। এখান থেকে নবান্নে গিয়ে কোভিড নিয়ে বৈঠক করব। তারপরই সাংবাদিক সম্মেলন করে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করব।’

এর পাশাপাশি রাজ্যে শান্তি বজায় রাখার কথাও বলেন। শুধু তাই নয়, অনেককেই করোনা আবহে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানাতে পারেননি, সে কথা জানিয়ে দুঃখপ্রকাশও করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মোট আট দফায় গত ২৭ মার্চ থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হয়। নির্বাচনে ২৯৪টি আসনের মধ্যে তৃণমূল জয়ী হয়েছে ২১৩টি আসনে। বিজেপি জয় পেয়েছে ৭৭টিতে। তবে ভোট হয়নি দুটি আসনের।

করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০১১ ও ২০১৬ সালের মতো এবার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান বড় আয়োজন করা হয়নি। ২০১১ সালে প্রথমবার মুখ্যমন্ত্রীর শপথ গ্রহণের সময় এসেছিলেন তৎকালীন কংগ্রেস সরকারের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পি চিদম্বরম। রাজভবনের ভেতরে বিরাট মঞ্চ তৈরি করে বিশাল জনসমাগমের মাধ্যমে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান হয়েছিল সেবার।

দ্বিতীয়বার মমতার শপথ হয়েছিল রেড রোডে। সেবার আবার দেশের বিজেপি বিরোধী সব নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। কিন্তু কোভিড সংক্রমণের কারণে বিশাল জয়লাভের পরও বিশাল আয়োজনের ব্যাপারে সব পরিকল্পনা বাতিল করতে হয়েছে।

২০১১ সালের মতোই এবারও বিধায়ক না হয়েই মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন মমতা। কারণ, নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়িয়ে শুভেন্দু অধিকারীর কাছে পরাজিত হয়েছেন তিনি। যদিও, সেই ফলাফল নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তৃণমূল।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 "দৈনিক চট্টগ্রামের পাতা"
Design & Developed BY N Host BD